হিসাববিজ্ঞান বিষয়ে প্রয়োজনীয় টিপস্

Raisul Mushfeq Siddiki
হিসাববিজ্ঞান বিষয়ে (এ+) পেতে রচনামূলক অংশের জন্যে বরাদ্দকৃত মোট সময়কে (দুই ঘন্টা)  তত্ত্বীয় অংশ ও প্রায়োগিক অংশের জন্যে ভাগ করে নিবে। দুটি বড় প্রশ্ন ও দুটি ছোট প্রশ্নের উত্তর লেখার জন্যে ৩০ মিনিট। চূড়ান্ত হিসাব ছাড়া অন্য দুটি প্রায়োগিক অংশের উত্তর লেখার জন্যে ৪০ মিনিট এবং চূড়ান্ত হিসাব সমাধান করার জন্যে ৪০ মিনিট এবং ১০ মিনিট রাখবে পুনরায় রিভিশন দেওয়ার জন্যে।

ক)    তত্ত্বীয় অংশ : তত্ত্বীয় অংশে ভালো করার জন্যে সংজ্ঞায় দু-একজন মনীষীর মন্তব্য উল্লেখ করতে পারো। এছাড়া ক্ষেত্রবিশেষে দু-একটি উদহারণ উল্লেখ করা যেতে পারে। পাঁচ নম্বরের বড় প্রশ্নের উত্তর করার জন্যে এক পৃষ্ঠা এবঙ দুই নম্বরের সংক্ষিপ্ত প্রশ্নের উত্তর করার জন্যে এক পৃষ্ঠা এবং দুই নম্বরের সংক্ষিপ্ত প্রশ্নের উত্তর করার জন্যে অর্ধপৃষ্ঠা লেখা সুন্দরভাবে লিখবে।

খ)    চূড়ান্ত হিসাব ছাড়া অন্য প্রায়োগিক অংশ : জাবেদায় বিশেষ কয়েকটি লেনদেনের দিকে লক্ষ রাখবে। যেমন- অনাদায়ি পাওনা, অনাদায়ি পাওনা আদায়, বাট্টা, অপচয়, চেক প্রদান, চেক প্রাপ্তি, ব্যক্তিগত খরচ পরিশোধ, নিজ প্রয়োজনে উত্তোলন, ব্যাংক থেকে উত্তোলন ইত্যাদি জাবেদার ক্ষেত্রে লেনদেন সংঘটনের কারণ সুন্দরভাবে সংক্ষিপ্তাকারে লিখবে। নগদান বহির উত্তর করার জন্যে খেয়াল রাখতে হবে মাত্র দুটি লেনদেন কন্ট্রা হয়। একটি হলো ব্যাংক থেকে অফিসের প্রয়োজনে উত্তোলন এবং অন্যটি হলো ব্যাংকে চেক বা টাকা জমা দেওয়া। এছাড়া কোনো ব্যক্তির কাছ থেকে চেক পেয়ে অন্য ব্যক্তিকে দিলে উভয় দিকে নগদের ঘরে বসে। ধারে ক্রয় ও বিক্রয় নগদান বহিতে আসে না। পাওনাদার বাট্টা সঞ্চিতি বাদে অন্য যেকোনো সঞ্চিতি রেওয়ামিলের ক্রেডিটে বসে। শিক্ষানবিশ ভাতা ডেবিট বসে এবং শিক্ষানবিশ সেলামি ক্রেডিটে বসে। সঠিকভাবে স্থানান্তরের পরও রেওয়ামিলের উভয় দিক সমান না হলে যেদিকে যত কম থাকে সেদিকে তত টাকা লিখে উভয় দিকের যোগফল সমান করে দেখাতে হয়। এক্ষেত্রে কম টাকার জন্যে অনিশ্চিত হিসাব ব্যবহার হবে।

গ)    চূড়ান্ত হিসাব অংশ : চূড়ান্ত হিসাবের সমন্বয় লিখনের জন্যে খেয়াল রাখবে যে প্রতিটি সমন্বয় হিসাবে দুই বা চারবার বসবে। রেওয়ামিলের প্রতিটি টাকা হিসাবে একবার বসবে। সমন্বয়ে অনাদায়ি পাওনা ও পাওনা সঞ্চিতি উল্লেখ থাকলে বিবিধ দেনাদার থেকে অনাদায়ি পাওনা বাদ দিয়ে নতুন অনাদায়ি পাওনা সঞ্চিতি নির্ণয় করতে হবে। ধারে ক্রয়, ক্রয়-বিক্রয় হিসাবের ডেবিটে ক্রয়ের সঙ্গে যোগ হয় এবং উদ্বর্ত পত্রের দায় পাশে বিবিধ পাওনাদারের সঙ্গে যোগ হয়। আবার ধারে বিক্রয়, ক্রয়-বিক্রয় হিসাবের ক্রেডিটে বিক্রয়ের সঙ্গে যোগ হয় এবং সম্পদ পাশে বিবিধ দেনাদারের সঙ্গে যোগ হয়। শিক্ষানবিশ ভাতা লাভ-ক্ষতি হিসাবের ডেবিটে বসে এবং শিক্ষানবিশ সেলামি লাভ-ক্ষতি হিসাবের ক্রেডিটে বসে। বিশেষভাবে লক্ষ রাখতে হবে, রেওয়ামিলে বকেয়া ও অগ্রিম উল্লেখ থাকলে হিসাবে একবার লিপিবদ্ধ হবে। অতিরিক্ত মূলধন আনয়নের তারিখ উল্লেখ থাকলে সে অনুযায়ী মূলধনের সুদ ধার্য করা হয়। তারিখ উল্লেখ না থাকলে বিনিয়োগ ও সঞ্চয়পত্রের ওপর এক বছরের সুদ ধার্য করা হয়। বিনিয়োগ ও ঋণের সুদের ক্ষেত্রে সমন্বয়ের কিছু বলা না থাকলেও যদি রেওয়ামিলে সুদের হার এবং তারিখ উল্লেখ থাকে তাহলে সে হার এবং তারিখ অনুসারে সুদ ধরতে হবে। বিনিয়োগ ও সঞ্চয়পত্রের ওপর যে সুদ লাভ-ক্ষতি হিসাবের ক্রেডিটে যোগ হয় সে পরিমাণ সুদ উদ্বর্তপত্রের দায় পাশে বসে। অব্যবহৃত মণিহারি লাভ-ক্ষতি হিসাবের ডেবিটে মনিহারি থেকে বাদ যায় এবং উদ্বর্তপত্রের সম্পদ পাশে বসে। সমন্বয়ে উল্লেখ থাকলে উত্তোলনের সুদ লাভ-ক্ষতি হিসাবের ক্রেডিটে বসে এবং উদ্বর্তপত্রের দায় পাশে মূলধন থেকে বাদ যায়। চূড়ান্ত সমাধানের পর প্রয়োজনীয় কার্য টীকা ও নোট সংযোজন করবে।

About the Author

Raisul Mushfeq Siddiki / Author & Editor

I am currently a student. Living in Bangladesh

0 টি মন্তব্য:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন