ব্লগিং এ সফলতা অর্জনের জন্য সেরা দশ বিষয়

Raisul Mushfeq
ব্লগিং পেশায় যুক্ত হওয়া বা একটি ব্লগের অধিকারী হওয়া এবং সেখানে সফলতা পাওয়া কিছুদিন আগেও স্বপ্নের মতো ছিল, কিন্তু বর্তমানে অর্থ আয় এবং ব্লগ তৈরির পথ সহজ হওয়ায় অনেকেই নিজের ব্লগ তৈরি করা এবং এর মাধ্যমে আয় করতে আগ্রহী হচ্ছেন। তাই বর্তমানে প্রতি সপ্তাহেই হাজারখানেক নতুন ব্লগার সৃস্টি হচ্ছে। কিন্তু তারা কিছুদিনের মধ্যেই দেখতে পায় যে, ব্লগটিতে তেমন পাঠক নেই ফলে এর মাধ্যমে তাদের আয়ের পথ বন্ধ হয়ে যায়। ফলস্রুতিতে তারা হতাশ হয়ে ব্লগিং পেশাই ছেড়ে দিতে বাধ্য হয়।

সময়ের সাথে তাল মিলিয়ে ব্লগের জন্য সঠিক বিষয়(Topics) নির্বাচন করা একটি অতি গুরুত্বপূর্ন কাজ যা অনেক ব্লগারদের দ্বারাই উপেক্ষিত ফলে তারা তাদের লক্ষে পৌছাতে পারে না। একটি ব্লগ শুরু করার আগেই এই নিয়ে ব্যাপক চিন্তাভাবনা করা উচিৎ। একটি উদাহরনের সাহায্যে বলা যায় যে, একজন ব্যাক্তি খুবই ভালো আঁকতে পারে। সে এই বিষয় নিয়ে একটি ব্লগ খুলল যেখানে সে অংকনের বিভিন্ন কৌশল এবং তার নিজের সৃষ্ট ছবিগুলো শেয়ার করবে। যোগ্যতার ওপর ভিত্তি করে বিষয়টি গ্রহনযোগ্য, তবে এই ধরনের ব্লগে ভিজিটর খুব কমই আসবে। এর কারন হচ্ছে বর্তমানে লোকজন কারও যোগ্যতা সম্পর্কে পড়তে চায় না, তারা শুধু চায় নিজেদের চাহিদা মেটাতে। তাই ব্লগটি এমন হতে হবে যেন তার মাধ্যমে জনগনের চাহিদা মেটানো যায়।

বিভিন্ন জায়গায় দেখা যায় যে ব্লগারেরা তাদের ব্লগের ভিজিটর শুন্যতা নিয়ে চিন্তিত এবং এর সমাধান পেতে ব্যাকুল। ব্লগিং ক্যারিয়ারে সফলতা পেতে হলে আপনার ব্লগের জন্য উপযুক্ত বিষয় নির্বাচন করা অত্যন্ত জরুরী। নিচে একটি ব্লগের জন্য সেরা দশটি বিষয় দেওয়া হলো। আপনার ব্লগের জন্য যে কোন বিষয় নির্বাচন করতে পারেন।

১০.স্বাস্থ
যেহেতু এখন পুরো বিশ্বেই ইনআরনেট ছড়িয়ে পরেছে, সেজন্য সবাই চায় যেন তাদের স্বাস্থ বিষয়ক তথ্যগুলো সহজেই অনলাইনে পেতে। এই ধরনের ব্লগসমূহ ব্লগসমুহ সর্বদাই প্রচুর ভিজিটর পেয়ে থাকে প্রায় সকল দেশ থেকেই! কারন পাকিস্থানের একজন ব্যাবহারকারী বাংলাদেশের প্রেক্ষিতে ওজন কমানোর পদ্ধতি সম্পর্কে আগ্রহী হতে পারে। আপনার যদি ঔষধ এবং স্বাস্থ বিষয়ে ভালো জ্ঞান থাকে এবং আপনি যদি ভিজিটরদের চাহিদা মোতাবেক লেখা দিতে পারেন তাহলে খুব শিগ্রই আপনার ব্লগে প্রচুর ভিজিটর পাবেন।

৯.ফ্যাশান
স্বাস্থ এবং ফ্যাশন এর ব্লগগুলো সাধারনত তারাই ভিজিট করে যারা হয় কোনো অসুখ বা সমস্যায় ভুগছে, অথবা নিজের স্বাস্হ ও ব্যাক্তিত্ব নিয়ে চিন্তিত এবং এই বিষয়ে জানতে আগ্রহী। মূলত স্বাস্থ সম্পর্কে জানা প্রয়োজন তবে ফ্যাশন এর আগ্রহ নেশার মতো। আপনি যদি গ্ল্যামার ওয়ার্ল্ড িও ফ্যাশন সম্পর্কে খোজখবর রাখেন এবং এই বিষয়ে নিয়মিত আপনার ব্লগে লিখতে পারেন তবে আপনি নিঃসন্দেহে প্রচুর ভিজিটর পাবেন যারা এই সকল বিষয়ে জানতে আগ্রহী।

৮.সম্পর্ক
সম্প্রতি একটি জরিপে দেখা গেছে যে, ৯০% লোকের ব্যক্তিত্বেই সম্পর্কের প্রতি আকর্ষন দেখা যায়। বর্তমানে লোকজন ইন্টারনেটকেই সম্পর্ক উন্নতির বিস্বস্ত মাধ্যম হিসেবে দেখে। এই সম্পর্ক বিভিন্ন ধরনের হতে পারে যেমন কাজের প্রয়োজনে সম্পর্ক, ভালোবাসার সম্পর্ক বন্ধুত্ব এমনকী তারা বিশ্বের যে কোন প্রান্তের লোকের খাছে থেকে সমস্যার সমাধান পেতেও ভালোবাসে। তাই এই বিষয়ের ব্লগও সফলতা পাবে।

৭.টাকা আয়
টাকার প্রতি আগ্রহ সবারই আছে এবং তা সর্বদাই থাকবে। টাকা আয়ের বিভিন্ন পদ্ধতি সম্পর্কে জানতে তাদের বাধ্য হয়েই সার্চ করতে হয়। অর্থ বৃদ্ধি, ব্যাবসা শুরু করা, আয়ের বিভিন্ন পথ ইত্যাদি সর্বদাই জনপ্রিয় বিষয়। তাই এই ধরনের ব্লগও সফলতা পেতে পারে।

৬.প্রশ্নোত্তর সম্পর্কিত ব্লগ
দুইজন শিক্ষক এর মধ্যে একজন এর কাছে গিয়ে কোনো প্রশ্ন করলে তিনি প্রায় সবসমই উত্তর দেন এবং অন্যজন সব সময় বলে পরে কথা বলো, আপনি কাকে বেশি পছন্দ করবেন? তাই আমার মতে চলতি(Active) প্রশ্নের উত্তর বিষয়ক একটি ব্লগ খুব সহজেই ভিজিটর আকর্ষন করবে। সবাই এমন একটি জায়গা চায় যেখানে তার প্রশ্নগুলো পড়া হবে এবং উত্তর পাওয়া যাবে। answer.com এর মতো আপনিও একটি প্রশ্নোত্তর ব্লগ খুলে সফলতা পেতে পারেন।

৫.তারকা
সবচেয়ে সহজ এবং চিত্তাকর্ষক বিষয় হলো তারকাদের নিয়ে লেখা, আলোচনা মিডিয়ার তাজা খবর, নতুন ছবি ইত্যাদি নিয়ে ব্লগ তৈরি করা। শুধু আপনাকে এই বিষয়ে লক্ষ নিয়ে নিয়মমতো পোস্ট দিতে হবে।

৪.কেনা-বেচা
বর্তমানে অনলাইনে কেনাকাটা এখন ব্যাপক জনপ্রিয়তা পাচ্ছে। এটি বাজার এর প্রয়োজনীয়তা কমাতে পারে। সবাই চায় যে তাদের কাঙ্খিত জিনিস তারা যেন ঘরে বসেই পায়। তাই আপনি যদি মদ্ধস্থতাকারী হিসেবে কাজ করার জন্য প্রস্তুত থাকেন, তাহলে আপনি সফলতা পাবেন।

৩.সামাজিক মাধ্যমসমুহ
সামাজিক মাধ্যম এর শক্তি একটি পোস্টের মাধ্যমে বর্ননা করা যাবে না। এখন যার কোনো ব্যাংক অ্যাকাউন্ট নেই তারও ৩-৪ টি সামাজিক মাধ্যমের(ফেইসবুক,টুইার ইত্যাদি) অ্যাকাউন্ট আছে। সোসাল মিডিয়ার বিভিন্ন আপডেট সমৃদ্ধ একটি ব্লগের জনপ্রিয়তা ব্যাপক। যেমন mashable.com । এখানে সোসাল মিডিয়া বিষয়ক লেখার কারনেই ব্লগটি এত জনপ্রিয়তা পেয়েছে।

২.প্রযুক্তি
Techcrunch.com জাতীয় সাইটগুলো তাদের টেকনোলজী বিষয়ক লেখার জন্য প্রচুর অর্থ আয় করছে। যে কোনো নতুন পন্য বাজারে আসলেই তা আলোড়ন সৃষ্টি করে। আর সেইসব নতুন পন্য নিয়ে লিখলে স্বভাবতই প্রচুর ভিজিটর পাওয়া সম্ভব।

১.ব্লগিং টিপস
উন্নত দেশগুলোর ন্যায় উন্নয়নশীল দেশসমুহেও ব্লগিং এখন ব্যাপক জনপ্রিয়তা পেয়েছে। ফলে প্রতিনিয়তই নতুন ব্লগার তৈরি হচ্ছে। নতুন ব্লগারদের ক্ষেত্রে ব্লগিং শেখার সবচেয়ে উপযোগী মাধ্যমই হলো ব্লগ। এই ব্লগ এর মতো ব্লগিং এর টিপস, ট্রিকস, ব্লগিং এর মাধ্যমে আয় এবং ব্লগিং সম্পর্কিত যে কেনো বিষয়ে লিখিত ব্লগ এখন সবচেয়ে জনপ্রিয়। এই সকল ব্লগের ডিজাইন এর প্রতিও নজর রাখতে হয় যেন পাঠক ব্লগটি ভিজিট করতে স্বাচ্ছন্দবোধ করে।

আপনি যেই বিষয়টিকেই আপনার ব্লগে তুলে ধরুন না কেন, সফলতা পেতে হলে আপনাকে অবশ্যই ধৈর‌্য ধরে নিয়মিত ব্লগে সময় দিতে হবে। এভা্বেই আপসি আপনার ব্লগিং ক্যারিয়ার গড়ে তুলতে পারেন।

About the Author

Raisul Mushfeq / Author & Editor

I am currently a student. Living in Bangladesh

1 টি মন্তব্য:

  1. We play till we run 카지노사이트 out of budget and we at all times guess on the same number. Consider a European-style roulette which includes numbers between zero and 36. In roulette there are many of|there are numerous} totally different betting alternatives but we think about right here the simplest case where we guess on a single number. If we choose the right number then we win 35 occasions what we guess.

    উত্তরমুছুন